মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৯ মে ২০১৬

পাট গবেষণা আঞ্চলিক কেন্দ্র, কিশোরগঞ্জ

কিশোরগঞ্জ জেলা 24°02˝ – 24°39˝  উত্তর অক্ষাংশ এবং 90°02˝  – 91°15˝  পশ্চিম দ্রাঘিমাংশে অবস্থিত। জেলার উত্তরে নেত্রকোনা ও ময়মনসিংহ জেলা, দক্ষিণে নরসিংদী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা, পূর্বে হবিগঞ্জ ও সুনামগঞ্জ জেলা এবং পশ্চিমে গাজীপুর ও ময়মনসিংহ জেলা অবস্থিত। 7টি কৃষি পরিবেশ অঞ্চল নিয়ে এ জেলা গঠিত। জেলার উপর দিয়ে প্রবাহিত মেঘনা, ব্রহ্মপুত্র, ধলেশ্বরী, নরসুন্ধা, ধনু, শ্যামা প্রভৃতি নদ-নদী। নদীগুলো এ জেলার মাটিকে করেছে খুব উর্বর এবং কৃষি উপযোগী।

 

উদ্দেশ্য

 

দেশের বৃহত্তর ময়মনসিংহ ও সিলেট অঞ্চলের মাটি ও আবহাওয়া উপযোগী উচ্চ ফলনশীল পাটের জাত উদ্ভাবন করা।

অত্র অঞ্চলের মাটি ও আবহাওয়ায় অর্থনৈতিকভাবে সারের ব্যবহার এবং পাটের ফলন বৃদ্ধিকল্পে জাতভেদে সারের মাত্রা নির্ধারণ।

পাটের চাষাবাদ পদ্ধতির উন্নয়ন।

পাটের পোকামাকড় দমনের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন কীটনাশকের কার্যকারিতা নির্ধারণ।

পাটের বিভিন্ন জাতের রোগ প্রতিক্রিয়া পর্যবেক্ষণ এবং ছত্রাকণাশকের কার্যকারিতা নির্ধারণ।

পাটের গুনগত মান উন্নয়নের উদ্দেশ্যে উন্ত পচন পদ্ধতি উদ্ভাবন।

সম্প্রসারণকর্মী ও চাষীদের নিকট পাট চাষের নতুন প্রযুক্তি এর উপর প্রশিক্ষণ প্রদান ও হস্তান্তর করা।

অন্যান্য গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সাথে গবেষণা বিষয়ক মত বিনিময়।

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মুহূর্তে কৃষকদের জন্য বিনামূল্যে বীজ/চারা উৎপাদন ও বিতরণ করা।


Share with :